শেখ রাসেলের জীবনী

শেখ রাসেলের জীবনী: শেখ রাসেল জন্ম তারিখ ১৮ অক্টোবর ১৯৬৪ এবং মৃত্যু তারিখ ১৫ আগস্ট ১৯৭৫ বাংলাদেশের রাজনৈতিক নেতা শেখ মুজিবুর রহমানের সর্বকনিষ্ঠ পুত্র। ১৯৭৫ সালের সেনা অভ্যুত্থানে শেখ মুজিব হত্যার সময় সপরিবারে তাকেও হত্যা করা হয়েছিল।

শেখ রাসেলের জীবনী ভিডিও প্লেলিস্ট

  • মায়ের কাছে নেয়ার কথা বলে হত্যা করা হয় রাসেলকে

  • কার্টুন বাংলা শেখ রাসেলের ইতিহাস

  • শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণে অশ্রুসিক্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা


  • শেখ রাসেলের প্রাথমিক জীবন

    শেখ রাসেল তৎকালীন পূর্বকাল পাকিস্তানের ঢাকা অঞ্চলের ধানমন্ডিতে ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে ১৮ অক্টোবর, ১৯৬৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে রাসেল সর্বকনিষ্ঠ। ভাই-বোনের মধ্যে অন্যরা হলেন বাংলাদেশের সাম্প্রতিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা লড়াইয়ে মুক্তিবাহিনীর অন্যতম সংগঠক শেখ কামাল, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা শেখ জামাল ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিবিদ শেখ রেহানা। শেখ রাসেল বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবরেটরি বিদ্যালয় এবং কলেজের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষানবিশ ছিলেন।

    শেখ রাসেলকে কিভাবে হত্যা করা হয়েছিল

    ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট প্রত্যূষে একদল কিশোর সেনা অফিসার ট্যাঙ্ক দিয়ে শেখ মুজিবুর রহমানের ধানমণ্ডিস্থ ৩২ নম্বর ঘর ঘিরে ফেলে শেখ মুজিব, তার পরিজন ও তার পার্সোনাল কর্মচারীদের সাথে শেখ রাসেলকেও হত্যা করা হয়। শেখ মুজিবের নির্দেশে রাসেলকে নিয়ে পালানোর সময় ব্যক্তিগত কর্মচারীসহ রাসেলকে অভ্যুত্থানকারীরা আটক করে। আতঙ্কিত হয়ে ছোট্ট শিশু রাসেল কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেছিলেন, “আমি মায়ের নিকট যাব”। পরবর্তীতে মায়ের লাশ দেখার পর অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে মিনতি করেছিলেন “আমাকে হাসু আপার (শেখ হাসিনা) নিকট পাঠিয়ে দাও”। পার্সোনাল শ্রমিক এএফএম মহিতুল ইসলামের ভাষ্যমতে,,

    “রাসেল দৌড় দিয়ে এসে আমাকে জাপটে ধরে। আমাকে বললো, ভাই আমাকে মারবে না তো? ওর সে কণ্ঠ শুনে আমার আঁখি ফেটে জল এসেছিল। এক ঘাতক এসে আমাকে রাইফেলের বাট দিয়ে প্রচণ্ড মারলো। আমাকে মারতে দেখে রাসেল আমাকে ছেড়ে দিল। এবং (শেখ রাসেল) কান্নাকাটি করছিল যে ‘আমি মায়ের নিকট যাব, আমি মায়ের নিকট যাব’। এক ঘাতক এসে ওরে বললো, ‘চল তোর মায়ের নিকট দিয়ে আসি’। বিশ্বাস করতে পারিনি যে ঘাতকরা এতো নির্মমভাবে ছোট্ট সে শিশুটাকেও হত্যা করবে। রাসেলকে ভিতরে নিয়ে গেল ও তারপর ব্রাশ ফায়ার।”

    শেখ রাসেলের স্মৃতিচিহ্ন

    • শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র
    • শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ

    শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র

    শেখ রাসেলের স্মৃতিকে জাগরূক রাখার জন্য শেখ রাসেল চক্র প্রতিষ্ঠা করা হয়। এটা বাংলাদেশের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল ক্লাব। ১৯৯৫ সালে পাইওনিয়ার ফুটবল লীগে খেলার দ্বারা গমন আরম্ভ করে ক্লাবটি।

    শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ

    ১৯৮৯ বর্ষের ২০শে ফেব্রুয়ারি শেখ হাসিনা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন যাতে করে এই সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং খেলা সংগঠনের দ্বারা ছোট বাচ্চা শেখ রাসেলের স্মৃতি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং বঙ্গবন্ধুর অনুকরণীয় গ্রহণ করে এই রাষ্ট্র কে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে সেই টার্গেটে এ সংস্থা প্রতিষ্ঠিত।


    প্রশ্ন ও উত্তর

    শেখ রাসেলের জন্মদিন

    শেখ রাসেল জন্ম তারিখ ১৮ অক্টোবর ১৯৬৪

    শেখ রাসেলের বাবার নাম কি ?

    শেখ রাসেলের বাবার নাম শেখ মুজিবুর রহমান

    শেখ রাসেলের বাড়ি কোথায় ?

    শেখ রাসেল তৎকালীন পূর্বকাল পাকিস্তানের ঢাকা অঞ্চলের ধানমন্ডিতে ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে ১৮ অক্টোবর, ১৯৬৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন।

    শেখ রাসেলের জন্ম কোথায় হয়েছিল ?

    শেখ রাসেল তৎকালীন পূর্বকাল পাকিস্তানের ঢাকা অঞ্চলের ধানমন্ডিতে ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে ১৮ অক্টোবর, ১৯৬৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন।

    5/5 - (2 votes)

    মন্তব্য করুন