রাহুল গান্ধীর জীবনী

রাহুল গান্ধীর জীবনী: দেশের অন্যতম প্রভাবশালী গান্ধী পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও রাহুল গান্ধীর জীবনী রয়েছে অজস্র চড়াই-উৎরাই তাকে ভারতীয় যুব সমাজের একজন আইকন হিসেবে গণ্য করা হয়।

তিনি ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর নাতির ছেলে তার পরিবারে আরো দুইজন সফল প্রধানমন্ত্রী রয়েছেন তারা হলেন তার বাবা রাজীব গান্ধী এবং ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধী।

সুচিপত্র

    রাহুল গান্ধীর জন্মতারিখ

    রাহুল গান্ধী 1970 সালের ১৯শে জুন ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন, তাঁর পিতা ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী, এবং মাতা সোনিয়া গান্ধী,

    নেহেরু গান্ধী পরিবারের পঞ্চম প্রজন্ম তার ছোট বোনের নাম প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর রাজনৈতিক কাজে সবসময় সহায়তা করে থাকেন তার মা সোনিয়া গান্ধী হলেন সদ্য-প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি, রাহুল গান্ধী স্কুলে ভর্তির মধ্য দিয়ে তার শিক্ষাজীবন শুরু করেন এরপর 1981 থেকে 1984 সাল পর্যন্ত তিনি দেরাদুনের স্কুলে পড়াশোনা করেছেন।

    তবে নিরাপত্তার কারণে স্কুল জীবনের অধিকাংশ সময় বাড়িতে থেকে পড়াশোনা করতে হয়েছে, এবং শৈশবে তিনি নিরাপত্তাজনিত কারণে স্বাধীনভাবে ঘোরাফেরা করতে পারেননি, স্কুলে পড়াশোনার পর তিনি স্টিফেন্স কলেজে ইতিহাস বিভাগে ভর্তি হন, আশির দশকে খালিস্তান আন্দোলন নিয়ে অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে পুরো ভারত হিংসা-হানাহানি পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে জাতীয় রাজনীতি 1984 সালের 31 শে অক্টোবর নিজ বাসভবনে শিরদাঁড়া গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

    তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শ্রীমতি ইন্দিরা গান্ধী ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যুর ঘটনা বড়সড় ধাক্কা ফেলে কম বয়সী কিছুদিন পর গোয়েন্দা রিপোর্টে জানা যায়, যে গান্ধী পরিবারের ওপর সম্প্রদায়ের আবারো হামলার আশঙ্কা রয়েছে,

    রাহুল গান্ধীর শিক্ষার জীবন

    স্টিফেন্স এর প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন কেউ বলে থাকেন নিরাপত্তার খাতিরে উচ্চশিক্ষার জন্য দেশ ছেড়ে ইংল্যান্ডের হার্ভার্ডের পাড়ি জমান রাহুল গান্ধী।

    তবে তিনি বেশিদিন পড়াশোনা করতে পারেননি একের পর এক হত্যা কান্ড গ্রাস করতে থাকে গান্ধী পরিবারকে ইন্দিরা গান্ধী হাজার 1991 সালের 21 মে তার বাবা রাজীব গান্ধীর মৃত্যু শোক যেন আরও চেপে বসে রাহুলের মনে।

    আরো একবার দেশ ত্যাগ করেন রাহুল গান্ধী এবার তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের কলেজে ভর্তি হন রাজীব গান্ধীর হত্যাকাণ্ডের পর রাহুলের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হয়, এ সময় তিনি ইঞ্চি নামে একটি ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন যদিও তার আসল পরিচয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছিল।

    পাশাপাশি নিরাপত্তা সংস্থাগুলো কেউ তার আসল পরিচয় জানানো হয়েছিল, সেই সময়ে তিনি ট্রিনিটি কলেজ ক্যামব্রিজে ভর্তি হন, এবং সেখান থেকে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন।

    রাহুল গান্ধীর রাজনীতি জীবন

    পড়াশোনা করার পর রাহুল গান্ধী কিছুদিন ম্যানেজমেন্টে কনসাল্টিং ফার্ম মনিটর গ্রুপে কাজ করেন, এরপর তিনি ভারতে ফিরে আসেন এবং আউটসোর্সিং জব সার্ভিসেস প্রাইভেট লিমিটেডের ডিরেক্টরি হিসেবে কাজ শুরু করেন, কিন্তু কিছুদিন পরেই কাছে তিনি প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে যোগদান করেন।

    রাহুল গান্ধীর কর্ম জীবন

    যে পরিবারের সঙ্গে দেশের স্বাধীনতার ইতিহাস জড়িত সেই পরিবারের সন্তান কে রাজনীতি থেকে দূরে রাখা সম্ভব হয়নি 2004 সালে তিনি সরাসরি রাজনীতির মাঠে আসেন, এবং ইংল্যান্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যাবতীয় স্মৃতি রেখে প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর কেন্দ্র উত্তরপ্রদেশের আমি থেকে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হন, 2007 সালে তাকে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য মনোনীত করা হয়।

    এরপর ভারতীয় যুব কংগ্রেস এবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের ছাত্র ইউনিয়নের দায়িত্ব ন্যস্ত করা হয় কয়েক বছর পর তিনি কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হন।

    2017 সাল থেকে তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতির পদ অলংকৃত করেছেন এর আগে 2011 সালের 11 মে উত্তর প্রদেশের পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছিল, যখন তিনি গ্রামের কৃষকদের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

    সেখানে তাকে তিন ঘণ্টা আটকে রাখা হয় এরপর ছেড়ে দিয়ে তাকে চলে যেতে বলা হয় আসলে দলের ভেতরে একাধিক উচ্চ পদ মর্যাদায় আসীন হলেও সেভাবে বড় কোনো রাজনৈতিক সাফল্য এখনো রাহুলের ঝুলিতে জমা হয়নি।

    বেফাঁস কথা বার্তা বলার জন্য বেশ কয়েকবার ঝামেলা পোহাতে হয়েছে রাহুল গান্ধীকে, তিনি একবার মন্তব্য করেছিলেন মুসলিম জঙ্গিদের চেয়েও হিন্দু জঙ্গিরা ভারতের ভয়ের কারণ, এ জন্য তিনি রীতিমতো সমালোচিত হয়েছিলেন।

    2006 সালে মুম্বাই বিস্ফোরণের পর তিনি মন্তব্য করেছিলেন যে প্রতিটি জঙ্গি হামলা মোকাবেলা করা বাস্তবে সম্ভব নয়, তাই একেবারে তৃণমূল স্তরে থেকে এটা দেখতে হবে, এ মন্তব্যের জন্য তিনি সমালোচিত হয়েছিলেন।

    রাহুল গান্ধীর বিবাহিত জীবন

    রাহুল গান্ধী ব্যক্তিগত জীবনে অবিবাহিত এবং ব্যক্তিগত জীবনে তিনি গোপনীয়তা রাখতে খুবই পছন্দ করেন তবে শোনা যায় তার একজন গার্লফ্রেন্ড রয়েছে যার নাম হচ্ছে ভেরিলি, তিনি একজন স্থপতি এবং ভেনিজুয়েলায় থাকেন রাহুল গান্ধী নতুন প্রজন্মের রাজনীতিবিদ এবং রাজনৈতিক ক্ষেত্রে নতুন ধারণার জন্য তিনি ভারতের তরুণদের কাছে বেশ জনপ্রিয়।

    রাহুল গান্ধীর জন্মতারিখ

    রাহুল 1970 সালের ১৯শে জুন ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন

    রাহুল গান্ধীর পিতা এবং মাতার নাম

    রাহুল গান্ধীর পিতা ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী, এবং মাতা সোনিয়া গান্ধী,

    রাহুল গান্ধীর শিক্ষার জীবন

    u003cpu003eস্টিফেন্স এর প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন কেউ বলে থাকেন নিরাপত্তার খাতিরে উচ্চশিক্ষার জন্য দেশ ছেড়ে ইংল্যান্ডের হার্ভার্ডের পাড়ি জমান রাহুল গান্ধী।u003c/pu003eu003cpu003e তবে তিনি বেশিদিন পড়াশোনা করতে পারেননি একের পর এক হত্যা কান্ড গ্রাস করতে থাকে গান্ধী পরিবারকে ইন্দিরা গান্ধী হাজার 1991 সালের 21 মে তার বাবা রাজীব গান্ধীর মৃত্যু শোক যেন আরও চেপে বসে রাহুলের মনে।u003c/pu003eu003cpu003eu003cspan style=u0022font-size: inherit; color: var(u002du002dcontrast);u0022u003eআরো একবার দেশ ত্যাগ করেন u003c/spanu003eu003cstrong style=u0022font-size: inherit; color: var(u002du002dcontrast);u0022u003eরাহুল গান্ধীu003c/strongu003eu003cspan style=u0022font-size: inherit; color: var(u002du002dcontrast);u0022u003e এবার তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের কলেজে ভর্তি হন রাজীব গান্ধীর হত্যাকাণ্ডের পর রাহুলের নিরাপত্তা আরো জোরদার করা হয়, এ সময় তিনি ইঞ্চি নামে একটি ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন যদিও তার আসল পরিচয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছিল।u003c/spanu003eu003c/pu003e

    রাহুল গান্ধীর রাজনীতি জীবন

    রাহুল গান্ধী কিছুদিন ম্যানেজমেন্টে কনসাল্টিং ফার্ম মনিটর গ্রুপে কাজ করেন, এরপর তিনি ভারতে ফিরে আসেন এবং আউটসোর্সিং জব সার্ভিসেস প্রাইভেট লিমিটেডের ডিরেক্টরি হিসেবে কাজ শুরু করেন, কিন্তু কিছুদিন পরেই কাছে তিনি প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে যোগদান করেন।

    রাহুল গান্ধীর কর্ম জীবন

    u003cpu003eযে পরিবারের সঙ্গে দেশের স্বাধীনতার ইতিহাস জড়িত সেই পরিবারের সন্তান কে রাজনীতি থেকে দূরে রাখা সম্ভব হয়নি 2004 সালে তিনি সরাসরি রাজনীতির মাঠে আসেন, এবং ইংল্যান্ড মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যাবতীয় স্মৃতি রেখে প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর কেন্দ্র উত্তরপ্রদেশের আমি থেকে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হন, 2007 সালে তাকে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য মনোনীত করা হয়।u003c/pu003eu003cpu003eএরপর ভারতীয় যুব কংগ্রেস এবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের ছাত্র ইউনিয়নের দায়িত্ব ন্যস্ত করা হয় কয়েক বছর পর তিনি কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হন।u003c/pu003eu003cpu003e2017 সাল থেকে তিনি ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতির পদ অলংকৃত করেছেন u003c/pu003e

    রাহুল গান্ধীর বিবাহিত জীবন

    u003cstrongu003eরাহুল গান্ধীu003c/strongu003e ব্যক্তিগত জীবনে অবিবাহিত এবং ব্যক্তিগত জীবনে তিনি গোপনীয়তা রাখতে খুবই পছন্দ করেন তবে শোনা যায় তার একজন গার্লফ্রেন্ড রয়েছে যার নাম হচ্ছে ভেরিলি, তিনি একজন স্থপতি এবং ভেনিজুয়েলায় থাকেন

    3.7/5 - (3 votes)

    মন্তব্য করুন